Home > পাঠকের প্রশ্ন > বগল ও যোনির কালো দাগ দূর করার উপায়
Loading...

বগল ও যোনির কালো দাগ দূর করার উপায়

আমার কাছে অনেকে জানতে চেয়েছেন কিভাবে বগলের ও যোনির কালো দাগ দূর করে ফর্সা করা যায়। আজ আমরা জানাবো কিভাবে ঘরোয়া ভাবে বগল ও যোনির কালো দাগ মুছে ফর্সা করবেন। পরামর্শ দিয়েছেন হেলথ বাংলার আফসানা জামিন

নানা কারণে বগল ও যোনিতে কালো দাগ পড়ে। দীর্ঘক্ষণ প্যান্টিতে চাপা থাকার ফলে অতিরিক্ত ঘামে যোনি কালো হয়ে যায়। জন্য প্যান্টি পরার আগে অবশ্যই পাউডার লাগানো উচিত যাতে অতিরিক্ত ঘাম না হয়। বগলের ক্ষেত্রেও ঠিক একই কথা অতিরিক্ত টাইট ব্রা কিংবা টাইট ব্লাউজ পরার কারনে বগল কালো হয়ে যেতে পারে। অনেক সময় ওজন বাড়ার সাথে সাথে বগল ও যোনীতে ভাঁজ পড়ে এবং এই ভাঁজ থেকে পরে কালো হয়ে যায়।

Whitening-Bogol

 

বগল ও যোনিতে বিভিন্ন কারণে দাগ পড়তে পারে। রোদে বেশি ঘোরাঘুরি করলে সূর্যের ক্ষতিকর অতি বেগুনি রশ্মির কারণে বগল ও যোনিতে দাগ পড়তে পারে। আবার অনেকের স্থূলতার কারণেও বগল ও যোনিতে ভাঁজ পড়তে দেখা যায়। এই ভাঁজ থেকেও কালো দাগের সৃষ্টি হয়। বাইরে বের হলে মুখ ও হাতের সঙ্গে সঙ্গে বগল ও যোনিতে রোদ ও পরিবেশের ক্ষতিকর প্রভাব পড়ে। আয়নায় শুধু মুখের ক্ষতিটাই চোখে পড়ে। অগোচরে থেকে যায় বগল ও যোনি। নিয়মিত যত্ন নেওয়া হয় না বলে বগল ও যোনিতে কালো দাগ পড়তে শুরু করে। অনেকের মধ্যে অ্যালার্জির সমস্যা থেকেও বগল ও যোনিতে দাগ হতে পারে। মুক্তি পেতে নিয়মিত বগল ও যোনির যত্ন নিতে হবে। সপ্তাহে এক থেকে দুইবার কোনো একটি প্যাক বগল ও যোনিতে লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর ধুয়ে ফেললে এই সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব।

দেখে নিন ঘরোয়া ভাবে নিচের রস গুলো লাগিয়ে কিভাবে বগল ও যোনির কালো দাগ দূর করবেন

আলুর রস

 

আলুর রস যোনির কালো দাগ দূর করতে ভূমিকা রাখে। আলু কুচি অথবা আলুর রস যোনিতে লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে যোনির কালচে ভাব দূর হয়ে যাবে।

শসার রস

শসা
শসা

শসার রস বগল এর কালো দাগ দূর করতে বেশ কার্যকর। শসার রস ত্বকের হারানো রং ফিরে পেতেও সহায়তা করে। ত্বকের মরা কোষ দূর করে বগল করে উজ্জ্বল ও সুন্দর। শসা মিহি কুচি করে নিন অথবা ব্লেন্ড করে নিন। এরপর বগল এর কালো দাগের ওপর কয়েক মিনিট ভালো করে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

mastercard

লেবুর রস

Lemon Prevents Cancer

এক টুকরা লেবুর সঙ্গে চিনি লাগিয়ে বগল ও যোনিতে কালো জায়গায় আলতো করে ঘষুন। কিছুক্ষণ রেখে শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। লেবুর রস প্রাকৃতিক ব্লিচের কাজ করে। নিয়মিত লেবুর রস ব্যবহারে যেকোনো কালো দাগ ধীরে ধীরে হালকা হয়ে যায়। একনাগাড়ে দুই সপ্তাহ করলে বগল ও যোনির কালো দাগও কমে যাবে।

গোলাপজল

লেবুর রস ও গোলাপজল গোপনাঙ্গের কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে। প্রতিদিন রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সমপরিমাণ লেবুর রস ও গোলাপজল মিশিয়ে গোপনাঙ্গের কালো দাগে লাগিয়ে নিন। সকালে উঠে ধুয়ে ফেলুন। এক মাস ব্যবহারের পর দেখবেন আপনার যোনি একদম ফর্সা টকটকে লাল হয়ে গেছে।

অ্যালোভেরা

অ্যালোভেরা বা ঘৃতকুমারীর রস কালো দাগ হালকা করে। অ্যালোভেরা থেকে তাজা রস বের করে বগলে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট। প্রতিদিন ব্যবহার করলে বগলের কালো দাগ দূর হয়ে যাবে।

মাসে একবার ভ্যাজাইনা স্ক্রাব

ভ্যাজাইনা স্ক্রাব
ভ্যাজাইনা স্ক্রাব

গোপনাঙ্গের কালো দাগ দূর করতে ভ্যাজাইনা স্ক্রাব এর বিকল্প নেই। প্রাকৃতিক নানা উপাদান দিয়েই ভ্যাজাইনা স্ক্রাব বানিয়ে নেওয়া যায়। একটি শসার বিচি ফেলে খোসাসহ ব্লেন্ড করে নিন। পাতলা কাপড়ে ছেঁকে রস আলাদা করে নিন। এর সঙ্গে অ্যালোভেরা, জেলাটিন, গ্রিন টি মেশান। গেলাটিন না গলা পর্যন্ত মিশ্রণটি প্যানে অল্প আঁচে জ্বাল দিন। এরপর ৩০ মিনিট ফ্রিজে রেখে মিশ্রণটি গাঢ় করে নিতে হবে। এরপর মিশ্রণটি যোনিতে আধা ঘণ্টা লাগিয়ে হালকা গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। কালো গোপনাঙ্গ ফর্সা করার জন্য এটি খুবই উপকারী।

Check Also

Hymen Girl

ভার্জিনিটি ও হাইমেন নিয়ে পাঠকের কিছু প্রশ্নের উত্তর

ভার্জিনিটি ও হাইমেন নিয়ে পাঠকের কিছু প্রশ্নের উত্তর জেনে নিন। অনেকে আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন …

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *