Loading...

জেনে নিন আপনি নিচের কোন যৌনরোগে ভুগছেন কিনা

অনেকে মনে করেন কনডম পড়ে যৌন কাজ করলেই আর কোনো যৌন রোগ হবার ভয় নেই। এটি সম্পূর্ণ ভুল ধারণা কারণ কনডমের শুধুমাত্র তরল দিয়ে যেসব রোগ ছড়ায় সেগুলো আটকাতে পারে কিন্তু যেগুলো সংস্পর্শের মাধ্যমে ছড়ায় সেগুলো কনডম এর মাধ্যমে আটকানো যায় না। তাই আজকেই দেখে নিন যে যৌন রোগ গুলো সং স্পর্শের মাধ্যমে ছড়ায় সেগুলোর কোন টি আপনার আছে কিনা।

জেনে নিন আপনি নিচের কোন যৌনরোগে ভুগছেন কিনা

যৌনরোগ অধিকাংশই প্রাথমিক চিকিৎসায় ভাল হয়ে যায়। এখন পর্যন্ত চিকিৎসাশাস্ত্রে আবিষ্কার হওয়া যৌন রোগগুলোর মধ্যে এইডস রোগ বাদে বাকি প্রত্যেকটি ভাইরাস বা ব্যাক্টেরিয়াজনিত যৌন রোগের চিকিৎসা সম্ভব বলে জানিয়েছে চিকিৎসকেরা। কিন্তু তা প্রাথমিক পর্যায়ে নির্ণয় করা গেলে যৌনাঙ্গের কোন ক্ষতি ছাড়াই আপনি সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন।

genital-disease

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক প্রতিবেদন অনুসারে প্রতি বছর বিশ্বজুড়ে অন্তত ২ কোটি মানুষ যৌনরোগে আক্রান্ত হন। এদের মধ্যে প্রায় ১ কোটি আক্রান্তের বয়স ১৫ থেকে ২৫ বছরের মধ্যে। প্রাথমিক সতর্কতা গ্রহণে এর মধ্যে ৪০ ভাগ রোগী সম্পূর্ণভাবে সেরে ওঠেন। কিন্তু বিষয়টি অবহেলার কারণে যৌনাঙ্গ অপারেশন করে বাদ দেয়া অথবা মৃত্যু হয় প্রায় ২০ ভাগ রোগীর। আর এ কারণে যৌন রোগগুলো ও তার লক্ষণগুলোর বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে।

মহিলাদের ভ্যাজাইনা, এনাস এর অনেক কাছে হওয়ায় খুব সহজেই ব্যাকটেরিয়া দিয়ে ইউরিনারি ইনফেকশন হয় এবং পরবর্তীতে সহবাসের সময় সেই ইনফেকশন পুরুষের ছড়িয়ে পড়ে।

যৌনতা বা যৌনরোগ নিয়ে অকারণ ভীতি, অজ্ঞতা বা সংকোচ বিপদ আরো বাড়িয়ে তোলে। তাই এ সম্পর্কে সম্যক ধারণা থাকা অত্যন্ত জরুরি। যৌনরোগ থেকে ক্যান্সার, অন্ধত্ব, সন্তানের জন্মগত ত্রুটি এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। সাম্প্রতিক বেশ কয়েকটি গবেষণায় পাওয়া তথ্য বলছে, পৃথিবী জুড়েই বাড়ছে যৌনরোগের প্রকোপ। বাংলাদেশ ও আজকাল খুব সহজে কল গার্ল পাওয়া যাচ্ছে এজন্য অবাধ সেক্স এর দুনিয়ায় বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে। আর এসব কল গার্লদের সাথে সেক্স এর সাথে সাথে অনিয়ন্ত্রিতভাবে ছড়িয়ে পড়ছে যৌন রোগ।

আসুন জেনে নেই যৌন সম্পর্কের ক্ষেত্রে বেশ কিছু করণীয় ও সতর্কতা সম্পর্কে

• এইচপিভি (HPV) বা হিউম্যান প্যাপিলোমা ভাইরাস এমন এক ধরনের ভাইরাস যা যৌন সম্পর্কের মাধ্যমে ছড়ায় এবং বেশ কয়েক ধরনের ক্যান্সারের জন্য দায়ী। অনেকের মধ্যে এই ভাইরাস কোনও উপসর্গ ছাড়াই বছরের পর বছর থাকতে পারে।

• নিরাপদ শারীরিক সম্পর্কের জন্য কনডম ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হলেও তা ১০০ ভাগ সুরক্ষিত নয়। সাধারণত তরলের মাধ্যমে ছড়ায় এমন সব যৌনরোগ থেকে কনডম সুরক্ষা দিতে পারে। যেমন, গনোরিয়া, ক্ল্যামাইডিয়া বা এইচআইভি। কিন্তু ত্বকের সংস্পর্শে ছড়ায় এমন সব যৌনরোগ যেমন সিফিলিস, হার্পিস এবং এইচপিভিকে আটকাতে কনডম তেমন কার্যকরী নয়

• অনেকের সেক্স করার সময় উত্তেজনার বশে কামড় দিতে শুরু করে। হালকা কামড় যেমন সেক্স উঠাতে সাহায্য করে সেরকম যদি শক্ত কামড় হয় তাহলে অনেক সময় চামড়া তে দাগ বসে যেতে পারে এবং লালা থেকে ছড়িয়ে যেতে পারে যৌন রোগ। এজন্য ওরাল সেক্স করার সময় সব সময় সাবধান জেনে নিন আপনার পার্টনারের কোনো যৌন রোগ আছে কিনা যেটি ওরাল সেক্সের মাধ্যমে ছড়াতে পারে।

• অধিকাংশ মানুষেরই ধারণা, শুধুমাত্র শারীরিক সম্পর্কের মাধ্যমেই যৌনরোগ ছড়ায়। কিন্তু বাস্তবে যৌনরোগ সম্পর্কে এটি হল সবচেয়ে বড় ভুল ধারণা। হার্পিস বা জেনিটাল ওয়ার্ট ত্বকের সংস্পর্শের মাধ্যমেও ছড়াতে পারে।

জেনিটাল ওয়ার্ট
জেনিটাল ওয়ার্ট কেমন হয় তা দেখে নিন

• নিয়মিত শারীরিক সম্পর্কে জড়িত থাকলে বছরে অন্তত একবার যৌনাঙ্গ এবং ‘বডি চেকআপ’ করান উচিৎ।

mastercard

• বেশির ভাগ যৌনরোগই উপযুক্ত চিকিৎসায় সম্পূর্ণ সেরে ওঠে। কিন্তু চিকিৎসায় অবহেলা করলে তা ভবিষ্যতে এইচআইভির ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। বিশেষ করে যাঁদের সিফিলিস, গনোরিয়া বা হার্পিস হয় তাঁদের ক্ষেত্রে এই ঝুঁকি অনেকটাই বেশি।

যৌন রোগের লক্ষণ

যৌনাঙ্গ থেকে তরল নিঃসৃত হওয়া

অনেক সময় যৌন রোগ হলে যৌনাঙ্গ দিয়ে ঘন বা তরল পুঁজ বের হয়ে আসতে পারে। মহিলারা অনেক সময় এটাকে লিউকোরিয়া বলে ভুল করতে পারেন। মেয়েদের যৌনাঙ্গ দিয়ে যদি সাদা সাদা পানির মত বের হয় তাহলে এটা লিউকোরিয়া হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। কিন্তু যদি কিছুটা ঘন থকথকে আঠালো তরল পদার্থ যৌনাঙ্গ দিয়ে বের হয় তাহলে এটা কে ইনফেকশন বলতে হবে। ইনফেকশন হলে ভয়ের কিছু নেই নিয়মিত ওষুধ খেলে এটি ভালো হয়ে যায়।

জেনে নিন কি কি কারনে যৌনাঙ্গ থেকে তরল রস নিঃসরণ হতে পারে

মূত্রে জ্বালা ভাব

অনেক সময় পানি কম খেলে প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া হয়। আবার অনেক সময় যদি ইনফেকশন হয় তাহলে ও প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া করতে পারে প্রস্রাবে জ্বালাপোড়া করলে কখনোই এটাকে হালকাভাবে নেয়া উচিত নয় অবশ্যই প্রস্রাব পরীক্ষা করানো উচিত এবং প্রস্রাব পরীক্ষা পুঁজ এর পরিমাণ নির্ণয় করে ইনফেকশন কতটুকু তা বোঝা যায়।

শারীরিক সম্পর্কের সময়ে ব্যথা বা রক্তপাত

সেক্স বা জন্মক্রিয়া বা যৌন ক্রিয়া করার সময় যদি রক্তপাত হয় তাহলে প্রথমেই চিন্তা করতে হবে কোনো যৌন রোগ আছে কিনা। তবে সেক্সের সময় রক্ত বের হলেই যে যৌন রোগ আছে তা কিন্তু নয়। অনেকে নতুন বিয়ের পর বৌয়ের যৌনাঙ্গ সরু ও চিকন হওয়ায় মোটা পেনিস ঢুকানোর সাথে সাথে রক্তপাত হতে পারে এর সাথে ইনফেকশন এর কোন সম্পর্ক নেই। শারীরিক সম্পর্কের সময় এরকম ব্যথা কমানোর জন্য অবশ্যই লিকুইড জেল ব্যবহার করা উচিত এখন দেশে বসেই আলীএক্সপ্রেস থেকে খুব সহজেই সেক্স করার লিকুইড জেল কিনতে পাওয়া যায়।

তলপেটে ব্যথা

যদি তলপেটে সব সময় ব্যথা থাকে বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে তাহলে অবশ্যই ধরে নিতে হবে তিনি কোন না কোন যৌন রোগে অবশ্যই ভুগছেন। মেয়েদের তলপেটে থাকে ইউটেরাস যদি বাচ্চা না হওয়ার সময় কেউ সেক্স করে এবং স্পার্ম ভিতর দিয়ে দেয় পরবর্তিতে ঐ পার থেকে ইনফেকশন ইউটেরাসে ছড়িয়ে পড়ে। ইউটেরাসে যদি একবার ইনফেকশন হয় তাহলে বারবার ইনফেকশন হতেই থাকে এবং বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা অনেক কমে যায়।

মলদ্বার দিয়ে রক্তপাত

মলদ্বার দিয়ে রক্ত পাত কে অনেক সময় বাংলাতে অর্শ বা গেজ বা পাইলস বলে থাকে মলদ্বার দিয়ে রক্তপাত অনেক সময়ই কঠিন কোন রোগের ইঙ্গিত করে। পায়ু পথে সেক্স ইসলামে সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ হলেও অনেকে ফ্যান্টাসির জন্য স্ত্রীর সাথে পায়ুপথে সেক্স করে থাকেন এবং পরবর্তীতে স্ত্রীর পায়ুপথ দিয়ে রক্ত বের হতে দেখা যায়। একে হেমোরয়েড বলে। মলদ্বার দিয়ে রক্ত পড়লে মেয়েরা অনেক সময় ই এ টি কে লুকিয়ে রাখে এবং যখন অনেক খারাপ পর্যায়ে চলে যায় তখন তা প্রকাশ করে। এ সময়ে আর কিছুই করার থাকেনা।

গলায় সংক্রমণ

গলার স্বর পরিবর্তন হয়ে যাওয়া অথবা হঠাৎ করে শুকনা কাশি বা কাশির সাথে কফ বের হওয়া ও যৌন রোগের লক্ষণ হতে পারে।

এই সব উপসর্গের কোনটি দেখলে অবশ্যই যৌনরোগের পরীক্ষা করান, চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। কারণ, এগুলি যৌনরোগের প্রধান কিছু উপসর্গ। যৌনাঙ্গের নিয়মিত যত্ন নেবেন পরিষ্কার করবেন শুকনা রাখবেন। যদি আপনার মনে ভয় থাকে যে আপনার যৌন রোগ হতে পারে কিংবা উপরের কোন লক্ষণ দেখা যায় তবে অবশ্যই দেরি না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। চিকিৎসকের কাছে যেতে লজ্জা পেলে আমাদের ফেসবুক পেজ এ যোগাযোগ করতে পারেন আমরা আপনাকে যথাসাধ্য চেষ্টা করব এবং আশ্বস্ত করব যে কিভাবে আপনার রোগটি আপনি সারাতে পারেন

এখনই সময় লজ্জা ভয় সঙ্কোচ ভুলে যদি যৌন রোগে ভোগার সম্ভাবনা থাকে তাহলে যথাশীঘ্র চিকিৎসা নেবার মনে রাখবেন আপনার দেরির জন্য আপনার যৌনাঙ্গ কেটে বাদ দেওয়া লাগতে পারে।

Check Also

Cough

শীতকালে নাক কান গলার সমস্যা

শীতে অনেকেরই নাক কান গলা তে সমস্যা দেখা দেয়। শীতের সময় এই রোগগুলো সম্পর্কে জানা …

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *