Loading...

মহিলাদের হাতের চুলকানি কেন হয়? কিভাবে হাতের একজিমা সারাবেন

একজিমা ত্বকের যে কোনো জায়গায় হতে পারে। এদের মধ্যে হাতের একজিমা প্রধান, যারা খুব পানি ঘাটেন, অনবরত সাবান বা সোডা জাতীয় জিনিসের সংস্পর্শে আসেন সেই সব মহিলাদের হাতে একজিমা হতে পারে। দীর্ঘদিনের একজিমা সারাতে রোগীকে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হতে হয়। মহিলাদের চুলকানি রোগের সমাধান এখানে দেয়া হল। একজিমা সহ মহিলাদের অনেক ধরনের ছুল্কানির সমস্যা থাকতে পারে। কেন এই চুলকানি হয়, কিভাবে এই চুলকানি রোগ প্রতিরোধ করবেন তা আজকে জেনে নিন।

মহিলাদের হাতের চুলকানি কেন হয়? কিভাবে হাতের একজিমা সারাবেন

একজিমা লক্ষণ : রোগের শুরুতে আঙুল লাল ও শুকনো হয়ে ফেটে ফেটে যায়, হাতের চামড়া থেকে ফোসকা উঠে। অনেক সময় ত্বক ফেটে গিয়ে গভীর ক্ষতের সৃষ্টি হয়। আঙুলে আংটি থাকলে তার চারপাশে একজিমা প্রকট হয়ে ওঠে।

মহিলাদের হাতের চুলকানি কেন হয়? কিভাবে হাতের একজিমা সারাবেন 1

শুধু মহিলা নন, যে পেশায় অনেকক্ষণ পানি ঘাটতে হয় বা সাবান দিয়ে বারবার হাত ধুতে হয় সেই পেশার লোকেরাও এ রোগে আক্রান্ত হয়। যেমন- চিকিৎসক, ময়লা পরিষ্কারক, মাছ ও পানি বিক্রেতা এবং আরও অনেকে।

খাবার থেকে একজিমা : আদা, পেঁয়াজ, টমেটো, গাজর, ডুমুর, কুমড়ো, বেগুন, পেপে থেকেও এ সমস্যা হতে পারে। খাবারের প্রোটিন জাতীয় অংশ প্রায়ই এ্যালার্জির সৃষ্টি করে। যেমন- আলু, গম, চিংড়ি, কাঁকড়া প্রভৃতি। প্লাস্টিক ও নিকেল জাতীয় ধাতব জিনিসের সংস্পর্শ থেকেও অ্যালার্জি হতে পারে।

একজিমা চিকিৎসা : এ রোগ দীর্ঘমেয়াদে হয়। যেসব কারণে এ রোগ হয় তা থেকে দূরে থাকাই কাম্য, তবে অনেক সময় এটি সম্ভব হয় না। তবে সুচিকিৎসায় এ রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। এ জন্য ক্রনিক বা দীর্ঘদিনের একজিমা সারাতে রোগীকে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ হতে হয়।

ত্বকযৌনব্যাধি বিশেষজ্ঞ
মোবাইল ফোন : 01912613374

Loading...

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.