Loading...
জীবনযাপন

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে, #Viral হচ্ছে Twitter এ

mastercard

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে, #Viral হচ্ছে Twitter এ। হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে, #Viral হচ্ছে Twitter এ। দেখে নিন এ কোন নতুন Trend?

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে, #Viral হচ্ছে Twitter এ

 

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়ে তার pussy দেখাচ্ছে। যদিও এটা একটা কার্টুন।

নিজেদের ফিট রাখার সহজ মন্ত্র হলো শরীরচর্চা। সাইক্লিং হোক বা ওয়াকিং, নিয়মিত শরীরচর্চা কখনও বাদ পড়ে না জাপানি মেয়েদের Japanis girl রুটিন থেকে।

মিষ্টি থেকে দূরে: মিষ্টি থেকে সবসময়ই দূরত্ব বজায় রেখে চলেন জাপানি মেয়েরা। তাদের মেনু menu কার্ডে থাকে না কোনও ডেজার্ট।

ভারি জল খাবার: জাপানি মেয়েরা দিনের শুরুটা করেন ভারী জল খাবার দিয়ে। গ্রিন টি, স্যুপ থেকে শুরু করে ওমলেট, স্টিমড রাইস সবই থাকে জল খাবারে।

হাল্কা ডিনার: দিনের শুরুটা তাদের ভারী জল খাবার দিয়ে হলেও তারা দিনের শেষটা করেন হাল্কা ডিনার dinner দিয়ে। তারা কখনই রাতে ভারি খাবার খায় না ।

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে heart shaped japanese boobs

জাপানের মেয়েরা খুবই অল্প মসলা দিয়ে খাবার রান্না করে। অল্প আঁচে এসব খাবার রান্না করা হয়। যাতে এর পুষ্টিগুণ বজায় থাকে। যেসব তেল হৃৎপিণ্ডের জন্য স্বাস্থ্যকর, সেই তেল দিয়ে তারা খাবার রান্না করে।

মজার বিষয় হলো আমরা মেদ কমানোর জন্য ভাতের পরিবর্তে রুটি খাই। আর জাপানের মেয়েরা রুটির পরিবর্তে ভাত খায়। কারণ গবেষণায় দেখা গেছে, পশ্চিমা বিশ্বে গমের রুটিই মোটা হওয়ার প্রধান কারণ। এ কারণে জাপানের মেয়েরা প্রতিদিন এক থেকে দুবার আধা কাপ ব্রাউন রাইস খেয়ে থাকে, যাতে তারা মোটা না হয়। 

জাপানের মেয়েরা সবচেয়ে বেশি খাবার খায় সকালের নাশতায়। তারা এ সময় অনেক ধরনের খাবার খাওয়ার চেষ্টা করে। সেদ্ধ ভাত, টফু ও পেঁয়াজের কলি দিয়ে মিসো স্যুপ, ছোট এক টুকরা শুকনো শৈবাল, ডিমের ওমলেট অথবা এক টুকরা মাছ ও গ্রিন টি সকালের নাশতা হিসেবে খেয়ে থাকে।

জাপানের মেয়েরা বাজারের তৈরি কোনো ডেজার্ট সচরাচর খায় না। চকলেট, কেক, বিস্কুট, আইসক্রিম খুবই অল্প পরিমাণে খায়। কারণ তারা এগুলোর ক্ষতিকর দিকগুলো জানে এবং মানারও চেষ্টা করে।

জাপানের মেয়েরা খাবার খেতে খুব পছন্দ করে। যেখানে পশ্চিমা দেশগুলোর মানুষ তাদের স্থুলতা নিয়ে চিন্তিত থাকে এবং সারাক্ষণ ডায়েটের মধ্যে থাকে সেখানে জাপানের মেয়েরা কোনো রকম ডায়েট ছাড়াই বিভিন্ন ধরনের খাবার খেয়ে থাকে। তবে অবশ্যই পরিমাণে কম।

জাপানের মেয়েদের মোটা না হওয়ার এবং বেশিদিন বাঁচার আরেকটি কারণ হলো তারা নিয়মিত ব্যায়াম করে। ব্যায়মের জন্য তারা অবশ্য কোনো জিমে যায় না। নিয়মিত সাইকেল চালানো, সময় পেলেই হাঁটা এবং মাঝে মাঝে পাহাড়ে চড়ার মতো কাজগুলো তারা ইচ্ছা করেই করে থাকে।

নেট দুনিয়া তে ছেলেরাও এটা নিয়ে ট্রল কম করেনি। হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে এটা নিয়ে ছেলেরাও তাদের বুক দেখাচ্ছে হার্ট শেপ করে।

Heart Shaped boobs troll

 

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে

 

হার্ট শেপ করে জাপানি মেয়েরা তাদের বুক দেখাচ্ছে, #Viral হচ্ছে Twitter এ

গত ২৫ বছর ধরে জাপানি মেয়েরা দীর্ঘায়ু হওয়ার রেকর্ড ধরে রেখেছে? গড়ে তারা ৮৬ বছরের বেশি বাঁচে। নাওমি মোরিইয়ামা তাঁর ‘জাপানিজ ওমেন ডোন্ট গেট ওল্ড অর ফ্যাট’ বইয়ে লিখেছেন কেন জাপানে মেয়েরা সহজে বুড়ো হয় না এবং কেন তারা কখনো মোটা হয় না। নিয়মমাফিক স্বাস্থ্যকর খাবারই জাপানি মেয়েদের কর্মক্ষম ও সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

Loading...
Tags

Kowsar Hamid

আমি কাওসার হামিদ, হেল্‌থ বাংলা ডট কম এর খারাপ খারাপ পোস্ট গুলো আমাকেই দিতে হয়। পাব্লিক ডিমান্ড ও ইন্টারনেট সার্চ টার্ম গুলো আনালাইসিস করে পোস্ট গুলো আমি দেই, এজন্য আমাকে খারাপ ভাববেন না।

Related Articles

One Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close