Loading...

মেয়েদের পা সুন্দর করার উপায়

আজকাল পোষাক মানেই শর্ট স্কার্ট, শর্টস, হটপ্যান্ট, মিনিফ্রক ইত্যাদি নানান রকম। তবে পরছেন যারা তাদের অনেকেই একবার পায়ের দিকে তাকিয়ে দেখে না কি হাল পায়ের। দেখা যায় পা রক্ষ, ফাটা, পায়ের ত্বক খসখসে, কালো কালো ছোপ ইত্যাদি নানান সমস্যা।

Sexy Leg

মেয়েদের পা সুন্দর করার উপায়

কাউকে জিঞ্জাসা করলেই বলতে শুরু করে অনেক করেছি কিছুই হয়নি। এটা লাগাই ওটা মাখি, এই খাই তবুও হয়না। পার্লারে যাই নিয়মিত তাতেও এই দশা।

তাই জানাবো সুন্দর পোষাকের সাথে সুন্দর পায়ের যত্ন কিভাবে নেবেন –

পায়ের উপর ভর দিয়ে শরীর দাঁড়িয়ে থাকে তাই তার যত্ন তো বিশেষ হওয়া উচিৎ কি বলেন ?

গোসলের আগে

গোসলের আগে পায়ে তেল ম্যাসাজ করুন। ত্বক নরম থাকবে। যে কোন ভেজিটেবল ওয়েল ব্যবহার করতে পারেন।

ম্যাসাজের আগে তেল অল্প গরম করে নিন।

গোসলের আগে লেমন যুক্ত ক্রিম ম্যাসাজ করুন। ত্বক নরম হবে। ত্বকের কালো ভাব দূর হবে। সাবান ব্যবহার করবেন না।

গোসলের সময়

ঘরোয়া উপায়ে বেসনের সঙ্গে অল্প দুধ বা দই, হলুদ মিশিয়ে পেস্ট তৈরী করুন। পায়ের উপর ২০ মিনিট এই পেস্ট লাগিয়ে রাখুন। ভেজা হাত দিয়ে আস্তে আস্তে মিশ্রনটি ঘষুন এর পর ধুয়ে ফেলুন।

পায়ের রুক্ষ ভাব কমাতে ৫০মিলি গোলাপ জলের সঙ্গে ১চামচ গ্লিসারিন মিশিয়ে পায়ে লাগান। আধ ঘন্টা পর জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

গোসলের পর

ভিজে গায়ে বডি লোশান বা ক্রীম লাগান। অলিভ অয়েল দিয়ে পায়ের পাতায় মালিশ করুন।

পা ফাটার সমস্যা

নিয়মিত পায়ের যত্ন নিলে পা ফাটার সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব।

রাতে শোয়ার আগে ঈষদুষ্ণ জলে মোটা দানার নুন ও শ্যাম্পু মিশিয়ে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। হিল স্ক্রাবার দিয়ে গোড়ালি ঘষুন। মরে যাওয়া কোষ ঝরে পরবে। মেটাল স্ক্রাবার ব্যবহার করবেন না।

পা পরিষ্কার করার পর ভাল ক্রিম দিয়ে পা মালিশ করুন। তার পর গোড়ালিতে ক্রিম লাগান। তুলো বা পরিষ্কার কাপড় বা গজ দিয়ে গোড়ালি জরিয়ে রাখুন যাতে ক্রিম বিছানায় লেগে না যায় পায়েই থাকে সারারাত।

পায়ের পক্ষে আরামদায়ক জুতো পরার চেষ্টা করুন।

জীবাণু সংক্রমণ প্রতিরোধ করতে

পায়ে ঘাম ও ধুলো ময়লা জমে ইনফেকশন দেখা দেয়।

সুতির মোজা পরুন। প্রতিদিন পরিষ্কার মোজা পরবেন।

পা শুকনো রাখার চেষ্টা করুন। ভিজে পায়ে জুতো পরবেন না।

দেখে আসতে পারেন পায়ে দুর্গন্ধ সমাধান

জুতো বদলে বদলে পরুন এক জুতো রোজ পরবেন না।

পা বেশী ঘামলে জলে ওডিকোলন মিশিয়ে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। তার পর পা শুকনো করে মুছে পাউডার লাগিয়ে রাখুন।

পায়ের গন্ধ কমাতে জলের সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে এতে কিছুক্ষণ পা ডুবিয়ে রাখুন। গন্ধ কমবে আর পা নরম ও হবে।

সমস্যা বাড়লে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নেবেন।

পায়ের ক্লান্তি কমাতে

মাঝে মাঝেই খালি পায়ে হাঁটুন। পায়ের পাতার এবং গোটা পায়ের নানান ব্যায়াম আছে করবেন। হালকা গরম জলে নুন ফেলে দিয়ে তার মধ্যে পা চুবিয়ে রাখলে আরাম পাবেন।

 

Loading...

Facebook Comments

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.